ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট এর ধারণা । Basic Concepts of Diesel Power Plant

আজকে আমরা ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট -ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট এর ধারণা (Basic Concepts of Diesel Power Plant )সম্পর্কে আলোকপাত করবো,আশাকরি যারা জানতে আগ্রহী তাদের কাজে আসবে।আর যারা জানেন তাদের আবার রিভাইস হবে।

ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট কাকে বলে?

যে সকল বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ডিজেল ইঞ্জিনকে প্রাইম মুবার হিসাবে ব্যবহার করা হয়,ঐ সকল বিদ্যুৎ ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট বলে। ডিজেল ইঞ্জিন সাধারণত দুই ধরনের হয়,যেমন – Two Strock Diesel Engine and Four Strock Diesel Engine ।তবে সচারাচর ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট এর ইঞ্জিন হিসাবে চার স্ট্রোক ডিজেল ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়। ইহা বড় ধরনের স্টেশনারি ডিজেল ইঞ্জিন।

ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্টের সাহায্যকারী ইকুইপমেন্ট ( Auxiliary Equipment of a Diesel Power Plant)

ডিজেল ইঞ্জিন বিশিষ্ট পাওয়ার প্ল্যান্ট কে সঠিক ভাবে পরিচালনার জন্য নিম্নোক্ত সাহায্যকারী সিস্টেম এবং ঐ সকল সিস্টেমে যে সকল যন্ত্র ব্যবহার হয় তা নিছে দেয়া হল,যথাঃ

Read  বাষ্প কনডেনসার কি? বিস্তারিত আলোচনা। - Steam Condenser

১। ফুয়েল সিস্টেম এর যন্ত্রপাতি, যথা- ফুয়েল ট্যাংক,ফিল্টার, পাম্প, হিটার ইত্যাদি।

২।এয়ার ইনটেক ও এগজস্ট সিস্টেম এর যন্ত্রপাতি, যেমন- এয়ার ক্লিনার,ডাক্ট,সুপার চার্জার,মেনিফোল্ড,নির্গমন পাইপ ইত্যাদি। ৩।কুলিং সিস্টেমের যন্ত্রাদি,যেমন- কুলিং পাম্প, কুলিং টাওয়ার,স্প্রে পন্ড ইত্যাদি।

৪।লুব্রিকেটিং সিস্টেমের যন্ত্রপাতি, যেমন- লুব অয়েল ট্যাংক,পাম্প,ফিল্টার, কুলার ইত্যাদি।

৫।স্টার্টিং সিস্টেম এর যন্ত্রপাতি, যেমন- স্টোরেজ ব্যাটারী,স্টার্টার,কম্প্রেসড এয়ার ইত্যাদি।

৬।জেনেরেটর এর যন্ত্রপাতি, যেমন- আর্মেচার,রোটর,কম্যুটেটর ইত্যাদি।

ডিজেল প্ল্যান্ট চালুর বিভিন্ন পদ্ধতি

পাওয়ার প্লান্টে ডিজেল ইঞ্জিন চালু করার জন্য প্রধানত তিনটি পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়,যথাঃ

১।কম্প্রেসড এয়ার স্টার্টিং – Compressed Air Starting

২।বৈদ্যুতিক মোটর স্টার্টিং – Electric Motor Starting

৩।অক্সিলারী ইন্জিন স্টার্টিং – Auxiliary Engine Starting

ডিজেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রয়োগক্ষেত্র সমূহ

যেসকল ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ চাহিদা মেটানোর জন্য ডিজেল বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব্যবহার করা হয়।

Read  বেসিক ইলেকট্রিক্যাল নলেজ পর্ব -১ Basic Electrical Knowledge Part -1

১।ভ্রাম্যমান শক্তি উৎপাদনের জন্য ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট উপযোগী, যেমন- সড়ক,নদীপথ ও রেলওয়ে ব্যবহার করা হয়।

২।ইহা Standby power plant হিসাবে ব্যবহার হয়ে থাকে।

৩।বিদ্যুৎ শক্তি উৎপাদনে ইহা সাধারণত ১০০ থেকে ৫০০ অশ্বশক্তি পর্যন্ত হয়ে থাকে।সে ক্ষেত্রে বেস প্ল্যান্ট হিসাবে কাজ করে। ৪। বিশেষ ধরনের পাওয়ার প্ল্যান্টের জন্য পিক লোড় প্ল্যান্ট হিসাবে কাজ করে।

৫।হটাৎ বিদ্যুৎ চলে গেলে জরুরি অবস্থায় বিদ্যুৎতের চাহিদা মেটানোর জন্য এটি ছোট প্ল্যান্ট হিসাবে কাজ করে।

৬।দুর্গম এলাকায় যেখানে সাব স্টেশন স্থাপন করা সম্ভব নয় এবং বিদ্যুৎ চাহিদাও কম সেখানে ডিজেল পাওয়ার প্ল্যান্ট ব্যবহার করা হয়।

৭।শিল্প ক্ষেত্রে যেখানে বিদ্যুৎ চাহিদা কম (৫০০ মেগাওয়াট) সেখানে এটি লাভ জনক।

Read  ডিসি জেনারেটর কাকে বলে এবং এর মূলনীতি উল্লেখ কর(What is DC Generator and Operation of DC Generator)

৮।পাওয়ার প্ল্যান্ট চালু করার পূর্বে সাহায্যকারী যন্ত্র চালনার জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহের ক্ষেত্রে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব্যবহার করা হয়।

আমাদের সাথে থাকার জন্য আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাই,সকল কে। আশাকরি আমাদের চেষ্টা আপনাদের কাজে আসবে।

Leave a Comment

You cannot copy content of this page