বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নবায়নযোগ্য শক্তি

যে সকল শক্তি আমরা প্রকৃতিতে পেয়ে থাকি, যা কখনো শেষ হয়না এবং বার বার ব্যবহার করা যায় তাকে নবায়নযোগ্য শক্তি বলে।আজকে আমরা এই পোস্টে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নবায়নযোগ্য শক্তির সুবিধা ও অসুবিধা সম্পর্কে জানবো।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নবায়নযোগ্য শক্তির সুবিধা

নবায়নযোগ্য শক্তির অনেক রকম শক্তির সুবিধা পাওয়া যায়। বিশ্বের জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে শক্তির চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় এই শক্তি এখন অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে বায়োগ্যাস পরিচ্ছন্ন জ্বালানি হিসাবে ব্যবহ্নত হয়। এটি উন্নতমানের জৈব সার পেতে সাহায্য করে। বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্রপাতি যেমন- পকেট ক্যালকুলেটর, পকেট রেডিও, ইলেকট্রনিক ঘড়ি ইত্যাদি সৌরশক্তি সাহায্যে চালানো যায়।মূলত নবায়নযোগ্য শক্তির প্রধান সুবিধা হল এটি নবায়নযোগ্য, এটি কখনো শেষ হয়ে যাবে না। নিচে এর সুবিধাসমূহ উল্লেখ করা হল।

• বায়ুপ্রবাহ ও সৌরশক্তি একটি অফুরন্ত শক্তির উৎস।কারণ বায়ু ও সূর্য সর্বদাই বিদ্যমান।

Read  জেনারেটরের প্যারালাল অপারেশনের শর্ত সমূহ কি কি?


• পানির স্রোতকে ব্যবহার করে বেশি পরিমাণে শক্তির উৎপাদান করা সম্ভব। এক্ষেত্রে স্রোতকে দেওয়ার জন্য তৈরি ব্রিজ বা ব্যারেজ সড়ক যোগাযোগকে উন্নত করে। চাঁদ যেহেতু পানির জোয়ার – ভাটাকে প্রভাবিত করে এবং এটি সর্বদাই বিদ্যমান তাই পানির জোয়ার ভাটা থেকে প্রাপ্ত শক্তি সর্বদাই ব্যবহার সম্ভব।

• নবায়নযোগ্য শক্তি সাধারণত পরিবেশবান্ধব, কারন এরা বায়ুতে কার্বন ডাইঅক্সাইড বাড়ায় না।

নবায়নযোগ্য শক্তির প্রয়োজনীয়তা যেমন আমাদের দেশে অনস্বীকার্য, তেমনি এর প্রাপ্যতা অনেকটা সহজ। আমাদের দেশের অনেক অঞ্চল আছে যেখানে এখনও বিদ্যুৎ পৌঁছেনি।সেখানে আমরা সহজেই সৌরশক্তির সাহায্যে বিদ্যুৎ পেতে পারি।

তাছাড়া বায়োগ্যাস উৎপাদনে রয়েছে আমাদের বিপুল
সম্ভাবনা। আমাদের দেশে প্রাকৃতিক গ্যাস সীমিত থাকায় আমাদের এই বিকল্প শক্তির সন্ধান অবশ্যই করতে হবে।
প্রকৃতির গ্যাসকে আমাদের এক স্থান থেকে অন্যস্থানে সরবরাহ করাতে প্রচুর খরচ হয়। যদি বায়োগ্যাস প্ল্যান্ট গড়ে তুলতে পারি সেক্ষেত্রে আমারা দ্বৈত সুবিধা পাব। প্রয়োজনীয় শক্তির চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি আমাদের জমি চাষের জন্য প্রয়োজনীয় সারের চাহিদাও মেটাতে সক্ষম হবে। কৃষিনির্ভর এই দেশে নিঃসন্দেহে বায়োগ্যাসের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

Read  শক্তির উৎস সম্পর্কে ধারণা (The Concept Of Sources Energy)

নবায়নযোগ্য শক্তির : সীমাবদ্ধতা বা অসুবিধা

বর্তমানে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যাপক চাহিদা আছে। তবে কিছু ক্ষেত্রে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার অসুবিধা দেখা যায়। নুসরাত আলোচনা করা হলো।

• বায়োগ্যস থেকে যে বিদ্যুৎ পাওয়া যায় তারা পরিমাণ কম এবং সীমিত।


• বায়ু প্রবাহ ও স্রোত থেকে যে নবায়নযোগ্য শক্তি পাওয়া যায় তারা উৎস সীমিত। কারণ এর জন্য যে প্লান্ট তৈরি করতে হয় তার জন্য সুবিধাজনক জায়গায় তৈরি করতে হয় তার জন্য সুবিধাজনক জায়গা লাগে। বায়ুর মাধ্যমে উৎপাদনের অন্যতম সমস্যা হলো সবসময় বায়ু প্রবাহ থাকে না।


• সূর্যের আলো থাকলে সৌরশক্তিনির্ভর নবায়নযোগ্য শক্তি পাওয়া যায় কিন্তু বৃষ্টির জন্য এর উৎপাদন ব্যাহত হতে পারে।


• অনেক সময় পানির জোয়ার-ভাটাকে নবায়নযোগ্য শক্তি উৎস হিসাবে ব্যবহারের ফলে নদীর গতিপথ পরিবর্তন হয়ে যায় ব্যবহারের ফলে নদির গতিপথ পরিবর্তন হয়ে যায়। এছাড়া নদীর উপর ব্রিজ বা ব্যারেজ নির্মাণে জাহাজ চলাচলও বাধাগ্রস্ত হয়।

Read  Steam Generator or boilar - বাষ্প জেনারেটর 


• সৌর, বায়ু ও প্রাণিসম্পদ থেকে উৎপন্ন নবায়নযোগ্য শক্তি সাধারণত ব্যয়বহুল।

আশাকরি উপরের আলোচনা থেকে আপনাদের একটা ধারণা হল নবায়নযোগ্য শক্তি সম্পর্কে। পরবর্তীতে অন্য কোনো টপিক নিয়ে পোস্ট করবো। ধন্যবাদ সকল কে আমাদের সাথে থাকার জন্য।

Leave a Comment

You cannot copy content of this page