মোটরগাড়ীর সিলিন্ডার। Engine Cylinder

আজকে আমরা  মোটরগাড়ীর সিলিন্ডার সম্পর্কে  আলোকপাত করবো,আশাকরি যারা জানতে আগ্রহী তাদের কাজে আসবে।আর যারা জানেন তাদের আবার রিভাইস হবে।

ইনজেকশনের সিরিঞ্জ ও পিস্টনের আকৃতির মতোই হলো মোটরগাড়ির সিলিন্ডার আর পিস্টন। ধাতুর তৈরী একটি বড় গোল চোঙের মতো আকৃতি হলো সিলিন্ডারের।

আধুনিক সিলিন্ডারের মাথার দিকটা নাট বোল্টু ও প্যাকিং এর সাহায্যে আটকানো থাকে।প্রয়োজন হলে মাথাটা পৃথক করা যায়। ঐ সিলিন্ডার মধ্যে, মাথার দিক বন্ধ আর একটি চোঙকে বায়ুনিরুদ্ব যাতায়াতের উপযোগী করা হয় তাকে বলে পিস্টন।

আধুনিক গাড়ীতে যে কয়টি সিলিন্ডার থাকে,তা একই সঙ্গে ঢালাই করে তৈরি করা হয়।তার ফলে সব কয়টি সিলিন্ডারের ব্যালান্স ঠিক থাকে। এই সব মিলিত সিলিন্ডার কে একত্রে বলে ব্লক।সাধারণত চার সিলিন্ডার, ছয় সিলিন্ডারের বা আট সিলিন্ডারের ব্লক তৈরী হয়। বিভিন্ন ধরনের সিলিন্ডার ও তার ব্লক বিভাগে প্রক্রিয়ায় তৈরী করা হয়ে থাকে। সিলিন্ডারের বডি সাধারণত ম্যালিয়েবল লোহাকে ঢালাই করে তৈরী করা হয়। এর ওপরের দিকে দুটি পথ বা পোর্ট রাখা হয়।

Read  ইঞ্জিন ওভারহলিংঃ সংজ্ঞা,প্রকারভেদ,উপসর্গগুলি কি।Fundamentals of Engine Overhauling

একটি পোর্ট দিয়ে ইঞ্জিনের গ্যাস প্রবেশ করে ও অপরটিতে পোড়া গ্যাস বের হয়ে যায়। ঐ দুটি পোর্ট, দুটি ভালভ দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা হয়। আই টাইপের সিলিন্ডারে, পোর্ট ও ভালভ, সিলিন্ডারের সঙ্গে থাকে। সিলিন্ডার একটি থাকপ না।সাধারণত কোন গাড়ীতে চারটি,কখনও ছয়টি বা আটটি সিলিন্ডার থাকে।

মেটাল সিলিন্ডার

কোন কোন ধরনের সিলিন্ডার এক ধরনের বিশেষ অ্যালুমিনিয়ামের তৈরী দিয়ে তৈরী হয়। যেসব সিলিন্ডার হালকা ভাবে তৈরী করা প্রয়োজন হয়, তা অ্যালুমিনিয়াম অ্যালয় দিয়েই তৈরী করা হয়ে থাকে। যদি অ্যালয় ভালে হয় তাহলে এটি যথেষ্ট শক্ত ও মজবুত হয়।যেসব সিলিন্ডার বাতাসের দ্বারা ঠাণ্ডা হয়,তাদের অধিকাংশই Ro ধরনের Cast Iron দিয়ে তৈরী কটা হয়।

সিলিন্ডার লাইনার

আজকাল অধিকাংশ সিলিন্ডারের মধ্যেই লাইনার থাকে। এতে যেমন একদিকে সিলিন্ডারের শক্তিবৃদ্ধি হয়,তেমনি আবার অন্যদিকে পিস্টন সহজে যাতায়াত করতেও পারে। লুব্রিকেটিং অয়েল দিয়ে লাইনার বেশি কার্যকরী হয়।লাইনার ক্ষয় হয়ে গেলে আবার নতুন লাইনার ব্যবহার করতে হয়।তার জন্য ফলে সিলিন্ডার বা পিস্টন পরিবর্তন করতে হয় না। এর ফলে সিলিন্ডার ব্লক দীর্ঘস্থায়ী হয়।

Read  এয়ার কম্প্রেসার কাকে বলে- Air Compressors

সিলিন্ডার ব্লক

সিলিন্ডার যেমন ব্লক হিসাবে তৈরী হয়, তেমনি সিলিন্ডারের সঙ্গে তার পিস্টন ও তার যোগাযোগও একত্রে তৈরী হয়।যা সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রিত করে।এর কারণ হলো একই সঙ্গে যে কয়টি সিলিন্ডার থাকে, তাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা ঠিক রেখে,এক সাথে পিস্টনের উঠানামা চলতে থাকে।

যেসব সিলিন্ডার ব্লকে এক সঙ্গে যুক্ত থাকে – তাদের পিস্টন ও কানোটিং রড সকলকে একটিমাত্র ক্র্যাংক শ্যাফটের সঙ্গে যুক্ত করা হয়।
এই সংযোগ ব্যবস্হা ঠিকমতো হয় বলে, সিলিন্ডারের সংখ্যা বেশি হলেও তাদের আকৃতি বড় করার প্রয়োজন হয় না।

সিলিন্ডার ব্লকে এমনভাবে তৈরী হবে যাতে চারটির সিলিন্ডার ব্লকে, যখন কম্প্রেশন হবে তখন অন্য দুটিতে এগজস্ট হবে। ছয়টির ব্লকে, তিনটির কম্প্রেশন হলে বাকি চারটির এগজস্ট হবে।
১ এবং ৪ : সিলিন্ডারে পিস্টন প্রবেশ করছে। ২ এবং ৩ : সিলিন্ডার থেকে পিস্টন বেরিয়ে আসছে।
এইরকম Cyclie ভাবে কম্প্রেশন আর এগজসশনের কাজ। সুতরাং এই হিসাবে সিলেন্ডারগুলোকে দুটো টাইপে বিভক্ত করা যায়। সেগুলো নিচে দেওয়া হল।

Read  ইঞ্জিন ওভারহলিং- প্রশ্ন ও উত্তর দ্বিতীয় পার্ট(Engine Overhauling - Questions and Answers Part Two)

১। মনোব্লক টাইপ।

২। প্যারালাল বা সিঙ্গল ব্লক টাইপ।

আমাদের সাথে থাকার জন্য আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাই,সকল কে। আশাকরি আমাদের চেষ্টা আপনাদের কাজে আসবে।

Leave a Comment

You cannot copy content of this page